• ঢাকা
  • শুক্রবার:২০২৪:Jun || ২১:২৩:৪৬
প্রকাশের সময় :
মে ১৯, ২০২৩,
৪:৫০ অপরাহ্ন

সর্বশেষ আপডেট :
মে ১৯, ২০২৩,
৪:৫০ অপরাহ্ন

৫৪৮ বার দেখা হয়েছে ।

রূপগঞ্জে ৪ ইটভাটার কার্যক্রম বন্ধ

রূপগঞ্জে ৪ ইটভাটার কার্যক্রম বন্ধ

আদালতের নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে ইটভাটা চালু রাখায় ডিসি ও পরিবেশ অধিদপ্তর নারায়ণগঞ্জের দায়িত্বরত কর্মকর্তাকে উচ্চ আদালতে তলব করার একদিন পর ৪ ইটভাটাকে জরিমানা ও কার্যক্রম বন্ধ করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার (১৮ মে) সকাল রূপগঞ্জের তারাইল এলাকায় অভিযান চালিয়ে এসব ইটভাটা বন্ধ করে দেওয়া হয়।
নারায়ণগঞ্জ জেলা প্রশাসক (ডিসি) মো. মঞ্জুরুল হাফিজের সভাপতিত্বে এতে নেতৃত্ব দেন জেলা প্রশাসনের সিনিয়র সহকারী কমিশনার নুশরাত আরা খানম ও আরাফাত মোহাম্মদ নোমান। এছাড়াও পরিবেশ অধিদপ্তর, ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স এবং নারায়ণগঞ্জ জেলা পুলিশের টিম উপস্থিত ছিলেন।
ইটভাটা গুলো হলো-রূপগঞ্জের তারাইলের এআরবি-১ ব্রিকস, মেসার্স পিআরবি ব্রিকস, বিআরবি ব্রিকস-২, এআরবি-২ ব্রিকস। এসব ইটভাটা দীর্ঘদিন ধরে অবৈধভাবে ইট প্রস্তুত করে আসছিল। এরা কৃষি ও ফসলি জমির মাটি অবাদে কেটে ইটভাটায় ইট তৈরি কাজে ব্যবহার করে আসছিল।
নারায়ণগঞ্জ জেলা প্রশাসনের অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট এক বিজ্ঞপ্তিতে জানান, পরিবেশগত ছাড়পত্র ও জেলা প্রশাসনের ইট পোড়ানো লাইসেন্স ব্যতিত ইটভাটাগুলো পরিচালিত হচ্ছিল। ইট প্রস্তুত ও ভাটা স্থাপন (নিয়ন্ত্রণ) আইন, ২০১৩ (সংশোধিত- ২০১৯) এর আওতায় মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করে ৪ ইটভাটাকে ২৫ হাজার করে ১ লাখ টাকা জরিমানা করা হয়। পাশাপাশি ইটভাটাগুলোর সকল কার্যক্রম বন্ধ করে দেয়া হয়।
উল্লেখ্য, ১৭ মে আদালতের আদেশ সত্ত্বেও অবৈধ ইটভাটা বন্ধ না করায় নারায়ণগঞ্জের জেলা প্রশাসক (ডিসি), পরিবেশ অধিদপ্তরের পরিচালক (এনফোর্সমেন্ট) ও পরিবেশ অধিদপ্তর নারায়ণগঞ্জের দায়িত্বরত কর্মকর্তাকে তলব করেছেন বিচারপতি কে এম কামরুল কাদের ও বিচারপতি শওকত আলী চৌধুরী গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ। আগামী ৩১ মে তাদের সশরীরে হাজির হয়ে এ বিষয়ে ব্যাখ্যা দিতে বলা হয়েছে।