• ঢাকা
  • সোমবার:২০২৪:ফেব্রুয়ারী || ১০:১৩:০১
প্রকাশের সময় :
অগাস্ট ৩০, ২০২৩,
১:০৫ অপরাহ্ন

সর্বশেষ আপডেট :
অগাস্ট ৩০, ২০২৩,
১:০৫ অপরাহ্ন

৫৩৫ বার দেখা হয়েছে ।

রূপগঞ্জে ১৫ কোটি টাকা নিয়ে এনজিও কর্মকর্তা আত্মগোপনে

রূপগঞ্জে ১৫ কোটি টাকা নিয়ে এনজিও কর্মকর্তা আত্মগোপনে

রূপগঞ্জে মায়ের ছায়া নামে একটি সমবায় সমিতির ১৫ কোটি টাকা নিয়ে আÍগোপনে চলে গেছেন সমিতির ব্যবস্থাপনা পরিচালক নিপু দাস। এ ঘটনায় ওই সমিতির পরিচালক মো. বাদল মিয়া, মো. হোসেন মিয়া, মো. সোহেল মিয়া ও মো. মামুন মিয়া বাদী হয়ে ব্যবস্থাপনা পরিচালক নিপু দাস ও তার সহযোগি নারায়ণগঞ্জের বন্দর থানার গঙ্গাকুল আমিন আবাসিক এলাকার শিবু ওরফে সিধু দাস, দিলিপ, অপু, লতা, সুবাস, পুজা দাস ও রূপগঞ্জ থানার মুড়াপাড়া এলাকার মিঠুন চন্দ্র দাসকে আসামী করে রূপগঞ্জ থানা ও নারায়ণগঞ্জ আদালতে মামলা দায়ের করেন। নিপু দাস বন্দর থানার গঙ্গাকুল আমিন আবাসিক এলাকার সিধু চন্দ্র দাসের ছেলে।
অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, ২০১৩ সালে মো. বাদল মিয়া, হোসেন মিয়া, সোহেল মিয়া, মামুন মিয়া ও নিপু দাসহ ৫ জন ঐক্যবদ্ধভাবে গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের সমবায় অধিদপ্তর থেকে মায়ের ছায়া নামে একটি সমবায় সমিতি লিমিটেডের অনুমোদন নেয়। যার স্মারক নং ০০৮৮-২০১৩। রেজুরেশনের মাধ্যমে ৫ সদস্যের কমিটি গঠন করে তারা সমবায় সমিতির কার্যক্রম শুরু করে। সমিতিতে ২ হাজারের অধিক গ্রাহক লেনদেন করে আসছিল। সম্প্রতি নিপু দাস ও তার সহযোগিরা মিলে সমবায় সমিতি ২ হাজার গ্রাহকের সঞ্চয়কৃত টাকা, বন্দর জেনারেল হাসপাতালের ও নগদ ১৫ কোটি টাকা নিয়ে পালিয়ে যায়। বতর্মানে তারা আÍগোপনে রয়েছে।
অভিযুক্ত নিপু দাস ও তার সহযোগীদের বাড়ি ও মুঠোফোনে যোগাযোগ করে তাদেরকে পাওয়া যায়নি। এ ব্যাপারে রূপগঞ্জ থানার ওসি এএফএম সায়েদ বলেন, মায়ের ছায়া সমবায় সমিতি লিমিটেডের অভিযুক্ত ব্যবস্থাপনা পরিচালকদের বিরুদ্ধে একাধিক অভিযোগ পেয়েছি। তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।