• ঢাকা
  • সোমবার:২০২৪:ফেব্রুয়ারী || ১০:৩৭:১৮
প্রকাশের সময় :
ডিসেম্বর ১২, ২০২২,
৮:৪৮ পূর্বাহ্ন

সর্বশেষ আপডেট :
ডিসেম্বর ১২, ২০২২,
৮:৪৮ পূর্বাহ্ন

৪৪৪ বার দেখা হয়েছে ।

‘মেসি ইতিহাসের সেরা, একথা কেউ অস্বীকার করতে পারবে না’

‘মেসি ইতিহাসের সেরা, একথা কেউ অস্বীকার করতে পারবে না’

২০২২ বিশ্বকাপে দুর্দান্ত ফর্মে আছেন লিওনেল মেসি। এরইমধ্যে দলকে সামনে থেকে নেতৃত্ব দিয়ে সেমিফাইনালেও তুলেছেন আর্জেন্টাইন ফরোয়ার্ড।
এরপর বাকি মাত্র দুই ধাপ; তৃতীয়বারের মতো বিশ্বকাপ জেতার স্বাদ পাবে আলবিসেলেস্তেরা। দলকে এ পর্যন্ত তুলে আনায় প্রশংসার জোয়ারে ভাসছেন মেসি।

ফেদেরিকো ভালভার্দের স্ত্রী মিনা বোনিনোও মেসির প্রশংসায় পঞ্চমুখ। তার জীবনসঙ্গী রিয়াল মাদ্রিদের তারকা খেলোয়াড়। তাছাড়া ভালভার্দে আবার উরুগুইয়ান। কিন্তু বোনিনো নিজে আর্জেন্টাইন। আর দশটা আর্জেন্টাইনের মতো মেসিকে ঘিরে স্বপ্ন দেখছেন তিনিও। পেশায় ক্রীড়া সাংবাদিক বোনিনোর দাবি, মেসিই ইতিহাসের সেরা খেলোয়াড়। তার মতে, আর্জেন্টাইন অধিনায়কের শ্রেষ্ঠত্ব কেউ অস্বীকার করতে পারবে না।

মেসির প্রশংসা করে টুইট করেছেন বোনিনো। সেই টুইটে ম্যাচসেরার পুরস্কার হাতে মেসির একটি ছবি পোস্ট করে তিনি লিখেছেন, ‘প্রতি ম্যাচেই যে ছবিটির পুনরাবৃত্তি হচ্ছে। সে (মেসি) আবার একটি ফিরিয়েও দিয়েছে। সে যে বিশ্ব (ফুটবলের) ইতিহাসের সেরা, একথা কেউ অস্বীকার করতে পারবে না। এই ৩৫ বছর বয়সেও সে যেভাবে পাস দেয়; সে খেলার গতিপথ বদলে দেয়। এটা অবিশ্বাস্য। ’

এবারের বিশ্বকাপে কোয়ার্টার ফাইনালে নেদারল্যান্ডসের বিপক্ষে আর্জেন্টিনার জয়ে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখেন মেসি। ম্যাচের নির্ধারিত সময়ের মধ্যে দলের দুটি গোলেই সরাসরি অবদান রাখেন তিনি। একটি নিজে করেন, আরেকটি সতীর্থকে দিয়ে করান। এরপর স্পটকিকে গড়ানোর পর প্রথম শট নেন তিনি। লক্ষ্যভেদও করেন। পরে ম্যাচটি জিতে সেমিতে উঠে আসে আর্জেন্টিনা।

মেসির এমন পারফরম্যান্সে মুগ্ধ বোনিনো। শুধু এবারই নয়, বহু আগে থেকেই তিনি মেসি-ভক্ত। কিন্তু পিএসজি তারকার প্রশংসা করায় তাকে নিয়ে প্রায়ই সমালোচনায় মুখর হন রিয়াল মাদ্রিদ ও উরুগুয়ের সমর্থকরা। এমনকি অনেক আর্জেন্টাইন সমর্থকদের দিক থেকেও সমালোচনা সইতে হয় তাকে। কারণ ভালভার্দে আবার মেসির সাবেক ক্লাব বার্সেলোনার চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী রিয়াল মাদ্রিদে খেলেন। লাতিন ফুটবলের দুই জায়ান্টের (উরুগুয়ে-আর্জেন্টিনা) প্রতিদ্বন্দ্বিতা তো আছেই।

২০২০ সালের মার্চে ভালভার্দের সঙ্গে বিয়ের পিঁড়িতে বসেন বোনিনো। এরপর থেকেই মূলত আর্জেন্টিনা ও মেসিকে সমর্থন করায় কটাক্ষের শিকার হয়ে আসছেন তিনি। এ ব্যাপারটাও টুইটে উল্লেখ করেছেন এই প্রখ্যাত ক্রীড়া সাংবাদিক, ‘মেসিকে নিয়ে টুইট করলেই রিয়াল মাদ্রিদ ভক্তরা পাগল হয়ে যান। উরুগুয়ে সমর্থকদের কেউ কেউ আবার প্রশ্ন তোলেন, আমার স্বামীর প্রতিদ্বন্দ্বী হওয়া সত্ত্বেও আমি মেসির প্রশংসা কীভাবে করি। আবার আর্জেন্টাইন সমর্থকদের অনেকে আমি মেসি-বিরোধী। আসলে সবাইকে সন্তুষ্ট করা যায় না। ’

লিওনেল মেসিকে ঘিরে আরও একবার বিশ্বকাপ জেতার স্বপ্ন দেখছে আর্জেন্টিনা। কাতারে নিজের সর্বস্ব নিংড়ে সেই স্বপ্ন পূরণের চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন আলবিসেলেস্তেদের অধিনায়ক। তাকে ঘিরে শিরোপা জেতার প্রত্যাশা সকল আর্জেন্টাইনের। মিনা বোনিনোও এর বাইরে নন। এজন্য সমালোচনাকে পাত্তা না দিয়ে তিনি লেখেন, ‘আমি মেসিকে জানি না। তাকে আমার পরিবারের চেয়ে এগিয়ে রাখা অনেকের চোখে অযৌক্তিক। কিন্তু আমি কোনোদিনও একথা অস্বীকার করবো না যে, সে বিশ্বের সেরা খেলোয়াড় এবং তার সবকিছু প্রাপ্য। আমি বিশ্বের সেরা খেলোয়াড়দের শেষ বিশ্বকাপ উপভোগ করছি এবং তাদের মধ্যে তুলনা করার চেয়ে বরং আমি তাদের প্রশংসা করবো। ’

এ বিশ্বকাপের প্রথম সেমিফাইনালে গতবারের রানার্সআপ ক্রোয়েশিয়ার মুখোমুখি হবে আর্জেন্টিনা। আগামী ১৩ ডিসেম্বর বাংলাদেশ সময় দিবাগত রাত ১টায় লুসাইল স্টেডিয়ামে হবে ম্যাচটি।