• ঢাকা
  • শুক্রবার:২০২৪:এপ্রিল || ১৩:৪৫:৫৪
প্রকাশের সময় :
জুলাই ৩০, ২০২২,
৯:০৪ অপরাহ্ন

সর্বশেষ আপডেট :
জুলাই ৩০, ২০২২,
৯:০৪ অপরাহ্ন

৩৯৯ বার দেখা হয়েছে ।

প্রতিটি গ্রামে একজন উচ্চশিক্ষিত থাকলে গণ বিশ্ববিদ্যালয় স্বার্থক: ডা. জাফরুল্লাহ

প্রতিটি গ্রামে একজন উচ্চশিক্ষিত থাকলে গণ বিশ্ববিদ্যালয় স্বার্থক: ডা. জাফরুল্লাহ

দেশের প্রতিটি গ্রামের অন্তত একজনকে উচ্চ শিক্ষায় শিক্ষিত করতে পারলে গণ বিশ্ববিদ্যালয় গড়ে তোলা স্বার্থক হবে বলে মন্তব্য করেছেন বিশ্ববিদ্যালয়টির ট্রাস্টি ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী।
শনিবার (৩০ জুলাই) দুপুরে সাভারের আশুলিয়ায় অবস্থিত গণ বিশ্ববিদ্যালয়ের ২৪তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদযাপন উপলক্ষে আলোচনা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে তিনি এ কথা বলেন।

ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী বলেন, প্রখ্যাত অর্থনীতিবিদ অধ্যাপক আনিসুর রহমান গণ বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠার মূল স্বপ্নদ্রষ্টা। বিশ্বকবি রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের শান্তিনিকেতনের আবহে নুতন একটি শান্তিনিকেতন প্রতিষ্ঠা করতে চেয়েছিলেন তিনি। তারই বাস্তবায়ন গণ বিশ্ববিদ্যালয়। আমরা শুধু তাঁর স্বপ্নের সঙ্গে যুক্ত হয়েছি মাত্র। গণ বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার মান উন্নয়ন ও শিক্ষকদের গবেষণামূলক কাজে আরও বেশি সম্পৃক্ত হতে হবে।

বয়োবৃদ্ধদের সেবা প্রদান সংক্রান্ত এক বছরের ডিপ্লোমা কোর্স চালু করার বিষয়ে তিনি বলেন, খুব অল্প খরচে এ কোর্সের মাধ্যমে শিক্ষা নিয়ে শিক্ষার্থীরা বিদেশে গিয়ে বৃদ্ধদের সেবা দিতে পারবে। এতে করে দেশের অনেক বেকার যুবকের কর্মসংস্থান হবে।

গণ বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য (ভারপ্রাপ্ত) অধ্যাপক ড. মো. আবুল হোসেনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন রেজিস্ট্রার এস. তাসাদ্দেক আহমেদ।

এর আগে সকালে ক্যাম্পাস চত্বরে বেলুন উড়িয়ে অনুষ্ঠানের উদ্বোধন করেন ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী। এরপর তিনি বৃক্ষরোপণ কর্মসূচীতে অংশ নেন। তিনি আগামী বছর বিশ্ববিদ্যালয়ের রজতজয়ন্তী উদযাপনের আগেই শিক্ষার্থীদের জন্য দু’জন ট্রাস্টি সদস্য কাজী ফজলুর রহমান ও তাহরুন্নেসা আবদুল্লাহ-এর নামে দুটি ছাত্রাবাস নির্মাণ কাজ শেষ করার ঘোষণা দেন।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন গণ বিশ্ববিদ্যালয় ট্রাস্টি বোর্ড সদস্য ও নারীপক্ষের সদস্য শিরীন পারভীন হক, উবিনীগ-এর নির্বাহী কর্মকর্তা ফরিদা আখতার, গণ বিশ্ববিদ্যালয়ের কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক মো. সিরাজুল ইসলাম ও আইকিউএসি-এর পরিচালক অধ্যাপক ডা. লায়লা পারভীন বানুসহ আরো অনেকে।