• ঢাকা
  • মঙ্গলবার:২০২৪:ফেব্রুয়ারী || ২০:০৩:২৬
প্রকাশের সময় :
সেপ্টেম্বর ৬, ২০২২,
৮:৪৯ অপরাহ্ন

সর্বশেষ আপডেট :
সেপ্টেম্বর ৬, ২০২২,
৮:৫৫ অপরাহ্ন

৩৮৯ বার দেখা হয়েছে ।

নারায়ণগঞ্জ জেলা ওলামাদলের সভাপতি বেনু খান আর নেই

নারায়ণগঞ্জ জেলা ওলামাদলের সভাপতি বেনু খান আর নেই

বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী ওলামাদলের কেন্দ্রিয় কমিটির সহসভাপতি ও নারায়ণগঞ্জ জেলা ওলামাদলের সভাপতি সামসুর রহমান বেনু খান মঙ্গলবার দুপুর দেড়টায় ইন্তেকাল করেছেন (ইন্নালিল্লাহে ওয়া ইন্না ইলাইহে রাজিউন)। মৃত্যুকালে তিনি স্ত্রী, ছেলে মেয়েসহ অসংখ্য গুনগ্রাহী রেখে গেছেন। বৃহস্পতিবার ভোরে বুকের ব্যথা অনুভব করলে তাকে ঢাকাস্থ সোহরাওয়ার্দী হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। নিবির পর্যবেক্ষণে থাকাবস্থায় হাসপাতালেই তিনি শেষ নিঃশ^াস ত্যাগ করেন। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৯২ বছর।
মঙ্গলবার বাদ মাগরিব মরহুমের রূপগঞ্জের তারাব পৌরসভার যাত্রামুড়াস্থ বাসভবনের সামনে মরহুমের জানাজা নামাজ অনুষ্ঠিত হয়েছে। পরে মিলাদ ও দোয়া শেষে সামাজিক কবরস্থানে মরদেহ দাফন করা হয়।

এদিকে ওলামাদল নেতা সামসুর রহমান বেনু খানের মৃত্যুতে গভীর শোক ও সমবেদনা জ্ঞাপন করে বিবৃত্তি দিয়েছেন বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। সেই সাথে নারায়ণগঞ্জ জেলা বিএনপির সাবেক সভাপতি অ্যাডভোকেট তৈমূর আলম খন্দকার, বিএনপির নির্বাহী কমিটির সদস্য মোস্তাফিজুর রহমান ভুঁইয়া দিপু, জেলা বিএনপির সদস্য সচিব অধ্যাপক মামুন মাহমুদ, রূপগঞ্জ উপজেলা বিএনপির আহ্বায়ক অ্যাডভোকেট মাহফুজুর রহমান হুমায়ুন, সদস্য সচিব বাছির উদ্দিন বাচ্চু, উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক দল নেতা রফিকুল ইসলাম, হাফিজুর রহমান, মোমেন ভুঁইয়া, ইলিয়াছ ভুঁইয়া, সোহেল রানা, খোরশেদ আলম, জেলা ছাত্রদলের সহসভাপতি শফিকুল ইসলাম, থানা ছাত্রদলের আহ্বায়ক নাহিদ হাসান, সদস্য সচিব মাসুম বিল্লাহ, থানা ওলামাদলের সভাপতি মাওলানা মজিবুল্লাহ, তারাব পৌর ওলামাদলের সভাপতি কামাল খান প্রমুখ শোক ও পরিবারের জন্য সমবেদনা প্রকাশ করেন।
মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর শোক বার্তায় বলেন, সামসুর রহমান বেনু খান একজন তুখোড় বক্তা ছিলেন। বিএনপির একজন নিবেদীত প্রাণও ছিলেন তিনি। দলের দু:সময়ে বেনু খান কঠোর কর্মসূচিসহ সভা, সমাবেশ, মিছিল, র‌্যালী, কালো পতাকা মিছিল করেছেন। দলকে অনেক ভালো বাসতেন। বেনু খানের সাথে বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমানও একাধিকবার কথা বলে দলের খোঁজ খবর নিতেন।