• ঢাকা
  • শনিবার:২০২৪:মার্চ || ২০:২৪:৫৫
প্রকাশের সময় :
নভেম্বর ৫, ২০২২,
২:০৫ অপরাহ্ন

সর্বশেষ আপডেট :
নভেম্বর ৫, ২০২২,
২:০৫ অপরাহ্ন

৩৩৩ বার দেখা হয়েছে ।

নারায়ণগঞ্জে তিন মাস ঘরছাড়া স্কুলশিক্ষার্থী

নারায়ণগঞ্জে তিন মাস ঘরছাড়া স্কুলশিক্ষার্থী

মোবাইল গেমস ফ্রি ফায়ারে আসক্ত এক স্কুলছাত্র তিন মাস ধরে ঘরছাড়া। অনেক খোঁজাখুঁজির পরও ছেলেকে না পেয়ে তার মা তিন মাস আগে সদর মডেল থানায় একটি অভিযোগ করেন। কিন্তু ছেলে স্বেচ্ছায় ঘর ছেড়েছে বলে পুলিশও কোনো সহায়তা করছে না। গত বুধবার রাতে প্রেস ক্লাবে এক সংবাদ সম্মেলনে এসব তথ্য জানান তার মা বিউটি বেগম।

বিউটি বেগমের অভিযোগ, প্রতিবেশী যুবক শরীফ তার ছেলে আরিফকে মোবাইল গেমসে আসক্ত করে। তার প্ররোচনাই ঘর ছেড়েছে আরিফ। পালানোর সময় নিয়ে গেছে তার বাবার দুটি মোবাইল ফোন, ১ ভরি স্বর্ণালংকার এবং ৫ ভরি রুপার গহনা।

বিউটি বেগম বলেন, আরিফ হোসেন মেধাবী শিক্ষার্থী। পঞ্চম শ্রেণি পর্যন্ত ভালোভাবে পড়ালেখা করে। কিন্তু শরীফের সঙ্গে পরিচয় হওয়ার পর মোবাইল গেমসে আসক্ত হয়। একসময় শরীফের সঙ্গেই নিয়মিত থাকতে শুরু করে। বেশ কয়েকবার শরীফের বাসা থেকে তাকে নিয়ে আসেন তার মা। সর্বশেষ ১৯ জুলাই মোবাইল ফোন, স্বর্ণালংকার ও রুপার গহনা নিয়ে পালিয়ে যায়।

তিনি জানান, থানায় অভিযোগ করেও কোনো সহযোগিতা পাননি। পুলিশ তাকে কোনো সহযোগিতাই করছে না।

বিউটি বেগম জানান, ১৭ জুলাই ভোরে কিছু কাপড় নিয়ে ঘর ছাড়ে আরিফ। তখন শরীফের পরিবারকে চাপ দিলে আরিফকে ক্রিকেট কোচ এনামুল হক খোকার মাধ্যমে পরিবারের কাছে ফিরিয়ে দেয়। কিন্তু এক দিন পরই আবারও পালিয়ে যায়। বর্তমানে আরিফ ও শরীফ দুজনই পলাতক। তবে শরীফ তার পরিবারের সঙ্গে যোগাযোগ রাখছে। এ বিষয়ে খোঁজ নিতে ক্রিকেট কোচ এনামুল হকের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, শরীফ আগে ক্রিকেট খেলত। সেই সূত্রেই পরিচয়।

আরিফের বিষয়টি তিনি অবগত জানিয়ে বলেন, এর আগেও আরিফকে নিয়ে পালিয়ে যায় শরীফ। তখন আরিফের পরিবারের চাপে শরীফ ছেলেটিকে আমার কাছে নিয়ে আসে। আমি আরিফকে তার পরিবারের কাছে বুঝিয়ে দিয়েছিলাম। এরপর আর কিছু জানি না।