• ঢাকা
  • শুক্রবার:২০২৪:এপ্রিল || ১৫:২৫:২১
প্রকাশের সময় :
নভেম্বর ১, ২০২২,
৮:৫৮ অপরাহ্ন

সর্বশেষ আপডেট :
নভেম্বর ১, ২০২২,
৮:৫৮ অপরাহ্ন

৪৫০ বার দেখা হয়েছে ।

নদীদূষণের দায়ে রূপগঞ্জ-আড়াইহাজারের চার প্রতিষ্ঠানের গ্যাস ও বিদ্যুৎ–সংযোগ বিচ্ছিন্ন

নদীদূষণের দায়ে রূপগঞ্জ-আড়াইহাজারের চার প্রতিষ্ঠানের গ্যাস ও বিদ্যুৎ–সংযোগ বিচ্ছিন্ন

নারায়ণগঞ্জে নদী দূষণকারী চার প্রতিষ্ঠানের গ্যাস ও বিদ্যুৎ–সংযোগ বিচ্ছিন্ন করে দিয়েছেন পরিবেশ অধিদপ্তরের ভ্রাম্যমাণ আদালত। মঙ্গলবার (১ নভেম্বর) পরিবেশ অধিদপ্তর সদর দপ্তরের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট কাজী তামজীদ আহমেদের নেতৃত্বে এই অভিযান চালানো হয়। এই নিয়ে গত এক বছরে দূষণের দায়ে নারায়ণগঞ্জে ১৮টি শিল্পপ্রতিষ্ঠানের গ্যাস ও বিদ্যুৎ–সংযোগ বিচ্ছিন্ন করেছে পরিবেশ অধিদপ্তর।

মঙ্গলবার যেসব প্রতিষ্ঠানের গ্যাস ও বিদ্যুৎ–সংযোগ বিচ্ছিন্ন করা হয়েছে, সেগুলো হলো নারায়ণগঞ্জের আড়াইহাজার উপজেলার দুপ্তারা গির্দা নগরপাড়া এলাকার মায়ের দোয়া ডাইং/রোমান নিউ কালার ডাইং, একই এলাকার মরিয়ম টেক্সটাইল ও সাদিকা টেক্সটাইল এবং রূপগঞ্জ উপজেলার আরিয়াব এলাকার কামাল স্টিল মিলস (ওয়াকিফ মেটাল ইন্ডাস্ট্রিজ)। অভিযানকালে নারায়ণগঞ্জ জেলা পুলিশ, বিদ্যুৎ বিছিন্নকারী দল, তিতাস গ্যাসের সংযোগ বিচ্ছিন্নকারী দল এবং পরিবেশ অধিদপ্তর, নারায়ণগঞ্জ জেলা কার্যালয়ের কর্মকর্তাদের সমন্বয়ে একটি দল উপস্থিত ছিল।

পরিবেশ অধিদপ্তরের নারায়ণগঞ্জ কার্যালয়ের উপপরিচালক আবদুল্লাহ আল মামুন এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এসব তথ্য জানান।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, কারখানা চারটি দীর্ঘদিন ধরে পরিবেশগত ছাড়পত্র ছাড়াই উৎপাদন কার্যক্রম পরিচালনা করা আসছিল। দূষণ নিয়ন্ত্রণে কারখানাগুলোর তরল বর্জ্য পরিশোধনাগার বা ইটিপি ছিল না। এর মধ্যে কামাল স্টিল মিলস (ওয়াকিফ মেটাল ইন্ডাস্ট্রিজ) নামের কারখানাটির পরিবেশবিষয়ক ছাড়পত্র থাকলেও তা হালনাগাদ করা ছিল না। ইটিপি থাকলেও তা ছিল অকার্যকর। কারখানাগুলো স্থায়ীভাবে বন্ধ করতে গ্যাস ও বিদ্যুতের সংযোগ বিচ্ছিন্ন করার জন্য পরিবেশ অধিদপ্তর নারায়ণগঞ্জ জেলা কার্যালয় থেকে প্রস্তাব পাঠানো হয়। সদর দপ্তরের মহাপরিচালক তাতে অনুমোদন দেন। এরপর অভিযান চালিয়ে কারখানাগুলোর সংযোগ বিচ্ছিন্ন করা হয়।