• ঢাকা
  • সোমবার:২০২৪:এপ্রিল || ১১:০৫:৫৪
প্রকাশের সময় :
ডিসেম্বর ১৯, ২০২২,
২:৪৭ অপরাহ্ন

সর্বশেষ আপডেট :
ডিসেম্বর ১৯, ২০২২,
২:৪৭ অপরাহ্ন

৩৬১ বার দেখা হয়েছে ।

দেশের ব্যাংক আমানতের ২৫ শতাংশ মতিঝিল ও গুলশান এলাকায়

দেশের ব্যাংক আমানতের ২৫ শতাংশ মতিঝিল ও গুলশান এলাকায়

দেশের প্রধান বাণিজ্যকেন্দ্র বর্তমানে মতিঝিল ও গুলশান। ব্যাংকপাড়া বলে খ্যাত মতিঝিলে যেমন অধিকাংশ বাণিজ্যিক ব্যাংকের প্রধান কার্যালয় তেমনি ব্যবসা বাণিজ্যেরও কার্যালয়।
আর গুলশান হয়ে উঠেছে ব্যবসা-বাণিজ্যের নতুন ঠিকানা। সারা দেশের মোট ব্যাংক আমানতের এক-চতুর্থাংশ রাজধানীর এই দুই থানা এলাকায়।

বাংলাদেশ ব্যাংকের পরিসংখ্যান বিভাগ সেপ্টেম্বর প্রান্তিকের তথ্যের ভিত্তিতে সর্বশেষ এ প্রতিবেদন তৈরি করে।

সারা দেশের আমানতের ১৩ দশমিক ৫৮ শতাংশ রয়েছে রাজধানীর মতিঝিল এলাকায়। মতিঝিলের বাণিজ্যিক ব্যাংকগুলোতে ৫৯ লাখ ৪২ হাজার ৪৫১টি ব্যাংক একাউন্টের বিপরীতে আমানতের পরিমাণ ছিল ২ লাখ ৫ হাজার ৭২৮ কোটি টাকা।অন্যদিকে গুলশান এলাকায় ২৮ লাখ ৫ হাজার ৩৩৫ একাউন্টের বিপরীতে আমানতের পরিমাণ ১ লাখ ৬৭ হাজার ৬০১ কোটি টাকা, যা মোট আমানতের ১১ শতাংশ।

আর সারা দেশের ৫১ শতাংশ আমানত রয়েছে রাজধানী তথা ঢাকা জেলায়। টাকার অংকে ৭ লাখ ৮২ হাজার ৩৪৩ কোটি টাকা।

দেশের ব্যবসা-বাণিজ্য রাজধানী কেন্দ্রিক। সরকারি, আধা সরকারি প্রধান অফিস রাজধানীকে কেন্দ্র করে। ফলে ব্যবসা-বাণিজ্যও গড়ে উঠেছে ঢাকাকে কেন্দ্র করে। সারা দেশে যেখানেই ব্যবসা-বাণিজ্য হোক না কেন, ঢাকাতে তার প্রধান কার্যালয়। এ কারণে রাজধানীর ব্যাংকগুলোতে ব্যাংক আমানতের অর্ধেক পঞ্জিভূত হয়েছে। বিশেষত মতিঝিলে ব্যবসা-বাণিজ্যের প্রতিষ্ঠানগুলো একত্রিত হয় বলে জানান বাংলাদেশ ব্যাংকের সংশ্লিষ্ট বিভাগের দায়িত্বপ্রাপ্ত একজন কর্মকর্তা।

পরবর্তীতে অভিজাত এলাকা হিসেবে গুলশান সম্প্রসারিত হওয়ার ফলে মতিঝিলের ব্যবসা-বাণিজ্য গুলশানের স্থানান্তর শুরু হয়। কিন্তু তারপরও মতিঝিল শ্রেষ্ঠত্ব ধরে রেখেছে, বলেন পরিসংখ্যন বিভাগের সংশ্লিষ্ট ওই কর্মকর্তা।

তথ্যে দেখা যায়, পুরান ঢাকার কোতোয়ালি থানায় দেশের মোট আমানতের ১ দশমিক ২৩ শতাংশ, রমনায় ২ দশমিক ৯৪ শতাংশ, তেজগাঁওয়ে ২ দশমিক ৯০ শতাংশ এবং দুই উত্তরার থানাতে ২ দশমিক ২৪ শতাংশ।

অন্যদিকে চট্টগ্রাম জেলায় রয়েছে দেশের মোট আমানতের ১৪ শতাংশ। ডাবুলমুরিং ও কোতোয়ালিতে একক থানা হিসাবে চট্টগ্রাম জেলার সর্বোচ্চ ব্যাংক আমানত থানা এলাকা।